.............. ................ ................... ................... শিবপুরের লটকন যাচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যে

নরসিংদীর শিবপুরে লটকন চাষ করে স্বাবলম্বী হয়েছে অনেক চাষিএতে উদ্বুদ্ধ হয়ে উপজেলার মানুষ-জনের মধ্যে লটকন চাষে আগ্রহ বাড়ছেপ্রতিবছরই বাড়ছে বাগান ফলনও হচ্ছে প্রচুরস্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে প্রতিদিন শত শত মণ লটকন সরবরাহ হচ্ছে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন শহরেএখানকার লটকন মধ্যপ্রাচ্যের বেশ কয়েকটি দেশেও রপ্তানি হচ্ছে

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, জয়নগর, বঘাব ও যোশর ইউনিয়নসহ সবকটি ইউনিয়নে প্রায় ৪৭৫ হেক্টর জমিতে ছোট-বড় মিলে ২ হাজার ৯৫৫টি লটকন বাগান রয়েছে

১০-১৫ বছর আগেও লটকনের তেমন চাহিদা ছিল নাদামও ছিল কমসে জন্য কেউ লটকনের স্বতন্ত্র বাগান করার চিন্তা করত নাবর্তমানে টক মিষ্টি সুস্বাদু এ ফলের চাহিদা ও দাম দুটিই বেড়েছেএমনকি অন্যান্য ফল চাষের তুলনায় লটকন চাষ অনেক বেশি সহজ এবং ফলনও বেশি হওয়ায় চাষিরা বেশি লাভবান হচ্ছেলটকন গাছের কাণ্ডে ফলেগাছের পুষ্টির সুষমতা ও আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে গাছের গোড়া থেকে প্রধান কাণ্ডগুলোতে এত বেশি ফল আসে যে, একটি পূর্ণবয়স্ক লটকন গাছে ৫ থেকে ১৫ মণ পর্যন্ত ফল পাওয়া যায়তখন গাছের কাণ্ড বা ডাল দেখা যায় নামানভেদে লটকন মণ প্রতি ২ হাজার থেকে ৩ হাজার টাকা দরে পাইকারি বিক্রি করা হয়ে থাকেপাইকাররা নিজেরাই বাগান থেকে লটকন ক্রয় করে থাকেন

উপজেলার আজকিতলা গ্রামের লটকন চাষি লোকমান হোসেন বলেন, আমি ২৫ বিঘা জমিতে লটকন বাগান করে স্বাবলম্বী হয়েছি মৌসুমেও অন্তত ২৫ লক্ষ টাকা আয় হবে বলে আশা করছিএকই গ্রামের লটকন চাষি মনরুউদ্দিনও ৬ বিঘা জমিতে লটকন চাষ করে অন্তত সাড়ে তিন লাখ টাকা আয়ের স্বপ্ন দেখছেনএ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. হানিফ সিকদার বলেন, লটকন চাষে পরিশ্রম ও খরচ দুটোই কমতাই উপজেলার লটকন চাষিরা বেশ লাভবান হচ্ছেনফলে দিন দিন এই উপজেলায় লটকনের চাষ বৃদ্ধি পাচ্ছে

শিবপুরের লটকন যাচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যে

[ - মোহাম্মদ উবাইদুল্লাহ ]

           Copyright 2021 www.narsingdibd.com Aestheticsand Mohammad Obydullah.  All Rights Reserved.E-mail: info@narsingdibd.com.