.............. ................ ................... ................... নরসিংদীর  স্মৃতিস্তম্ভ দৃপ্ত শপথ
   
 

২০১১ সালের ১৫ জানুয়ারী নরসিংদী তথা বাংলাদেশ পুলিশের ইতিহাসে এক মর্মান্তিক স্মৃতি বিজড়িত দিনএদিনে কর্মক্ষেত্রে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে নরসিংদী জেলার বেলাব উপজেলার ২ জন ওসিসহ ১০ জন পুলিশ কর্মকর্তা কর্মচারী সড়ক দুর্ঘটনায় পতিত হয়ে মর্মান্তিক মৃত্যুর শিকার হয়এ দিনটিকে স্মৃতিতে জাগরুক রাখার জন্য তৎকালিন নরসিংদী জেলা পুলিশ তথা পুলিশ সুপার ড. খঃ মহিদ উদ্দিন ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শিবপুর উপজেলাধীন ঘাসিরদিয়া নামকস্থানে নির্মান করেছেন এক দৃষ্টিনন্দন স্মৃতিস্তম্ভপুলিশের মনোগ্রাম মাঝখানে বেয়নেট সংযুক্ত একটি ৩০৩ রাইফেলের প্রতিকৃতি এবং একটি উড়ন্ত পায়রা এবং সারিবদ্ধভাবে ১০টি জলন্ত মোমের প্রতিকৃতি সমন্বয়ে তৈরী করা এই স্মৃতিস্তম্ভের নাম দেয়া হয়েছে দৃপ্ত শপথ

      সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত পুলিশের দশ সদস্যদের দৃপ্তশপথে স্মরণ করবে আগামী প্রজন্মসেই লক্ষ্যে ১৮ই মার্চ ২০১৩ইং রোজ মঙ্গলবার বিকেলে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ঘাশিরদিয়ায় দুর্ঘটনাস্থলে স্মৃতিফলক উদ্বোধন করা হয় এই স্মৃতিস্তম্ব   দৃপ্ত শপথ  প্রধান অতিথি হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার বেনজীর আহমেদ, বিপিএম (বার)বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি মোঃ শফিকুল ইসলাম এছাড়া এ উপলক্ষে আয়োজিত এক সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, শিবপুরের এমপি আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, নরসিংদী জেলা পরিষদ প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. আসাদুজ্জামান, নরসিংদীর পুলিশ সুপার ড. খঃ মহিদ উদ্দিন, শিবপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম মৃধা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাহ্ নেওয়াজ  খালেদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুখলেছুর রহমান, বিশিষ্ট শিল্পপতি আব্দুল কাদির মোল্লা, আব্দুল কাদির মোল্লা সিটি কলেজের অধ্যক্ষ ড. মশিউর রহমান মৃধা ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার বেনজির আহমেদ এ ফলক উদ্বোধন করেনপরে তিনি নিহত পুলিশ পরিবারের সদস্যদের হাতে ক্রেষ্ট তুলে দেন

জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গত ২০১১ সালের ১৫ জানুয়ারি বেলাব থানার দশ পুলিশ সদস্য  জেলা পুলিশ লাইনে প্যারেড বিফ্রিংয়ে অংশ নিতে নরসিংদী যাচ্ছিলেনতাদের বহনকারী পুলিশ ভ্যানটি বেলা এগারটার দিকে শিবপুরের ঘাশিরদিয়া এলাকা অতিক্রম করার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মাছ বোঝাই ট্রাকের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়এতে ঘটনাস্থলেই পরিদর্শক (তদন্ত) ও উপ-পরিদর্শকসহ আট সদস নিহত হয়পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় গুরুতর আহত অবস্থায় ওসি ফারুক আহমেদ খানকে নরসিংদী জেলা হাসপাতালে নেওয়ার পর এবং সদস্য প্রিয়তোষ ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় এতে ১০ জন পুলিশ কর্মকর্তা কর্মচারী নিহত হন

এই ভয়াবহ দুর্ঘটনায় নরসিংদীসহ সারা দেশে শোকের ছায়া নেমে আসেবাংলাদেশ পুলিশের আইজিপি হাসান মাহমুদ খন্দকারসহ পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তাগন নরসিংদীতে দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেন এবং নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিহত পুলিশ কর্মকর্তা কর্মচারীদের লাশ পরিদর্শন করেনবাংলাদেশ পুলিশের ইতিহাসে এতবড় ভয়াবহ দুর্ঘটনা এবং একই সময়ে এত সংখ্যক পুলিশ কর্মকর্তা কর্মচারী নিহত হবার ঘটনার কথা আর শুনা যায়নি

নিহতরা হলেন, বেলাব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত (ওসি) ফারুক আহমেদ খান (৪৫), পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল হক (৪২), উপ-পরিদর্শক (এসআই) কংকন কুমার মন্ডল(৪২), কন্সটেবল কৃষ্ণ কুমার বর্মণ(৫০), রিয়াজ উদ্দিন (৪০), নারায়ন চন্দ্র (৪৫), বজলুর রহমান (৫০), মাসুদ পারভেজ (৪২), প্রিয়তোষ (৫০) ও গাড়ির চালক রেজাউল হক (৪০)নিহতরা সবাই বেলাব থানায় কর্মরত ছিলেন

দুর্ঘটনার তিন বছর পর জেলা পুলিশের উদ্যোগে থার্মেক্স গ্রুপ, স্থানীয় সাংসদের অর্থায়নে নিহত দশ পুলিশ সদস্যদের স্মরণে স্মৃতিফলকটি নির্মাণ করা হয়নির্মাণের প্রাথমিক ব্যয় ধরা হয়েছে দশ লক্ষ টাকাস্মৃতি ফলকটি অলংকরন করেছেন চিত্রশিল্পি ফনি দাস

নরসিংদীর  স্মৃতিস্তম্ভ দৃপ্ত শপথ

[ - মোহাম্মদ উবাইদুল্লাহ ]

Copyright 2021 www.narsingdibd.com Aestheticsand Mohammad Obydullah. All Rights Reserved.Email: info@narsingdibd.com.